গোয়ালাবাজারে পূবালী ব্যাংকের গ্রাহক সমাবেশ সম্পন্ন।

0
283

আতাউর রহমান কাওছার,ওসমানীনগর(সিলেট) প্রতিনিধি: পূবালী ব্যাংকের উপ-ব্যবস্থাপক ওসিলেট অঞ্চল প্রধান জিয়াউল হক চৌধুরী
বলেছেন, পূবালীব্যাংক সিলেটিদের ব্যাংক।

কারণ মালিকানায় যারা রয়েছেন তাদের অধিকাংশই সিলেটি।
আজ রোববার বিকেলে পূবালী ব্যাংক ওসমানীনগরের গোয়ালাবাজার শাখায় আয়োজিত
গ্রাহক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা গুলো বলেন তিনি।

পূবালী ব্যাংককে জনগণের ব্যাংক উল্লেখ করে তিনি বলেন, বাংলাদেশে পূবালী
ব্যাংকের ৪৬৫টি শাখা রয়েছে তার মধ্যে ৯১টি সিলেটে।

অন্যান্য ব্যাংক বিভিন্ন হিডেন চার্জ নিলেও পূবালী ব্যাংক গ্রাহকদের কাছ
থেকে এধরণের কোন চার্জ নেয় না বলে জানান তিনি।

আমানত সংগ্রহ মাস উপলক্ষ্যে ব্যাংকের গোয়ালাবাজার ব্যবস্থাপক খাদেম
মোহাম্মদ আসা উজ-জামানের সভাপতিত্বে আয়োজিত গ্রাহক সমাবেশে বিশেষ অতিথির
বক্তব্য রাখেন, গোয়ালাবাজার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মানিক,
উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি, গোয়ালাবাজার আদর্শ উচ্চ
বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আবুল লেইছ ও ডাঃ নির্মল চন্দ্র দেব।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, ব্যবসায়ী বিষ্ণুপদগুপ্ত, কণ্ঠশিল্পি ও
ব্যবাসয়ী পংকজ দেব, তুহিন মনসূর প্রমূখ।
বক্তারা পূবালী ব্যাংক গোয়ালাবাজার শাখার সেবার মানে সন্তুষ্টি প্রকাশের
মাধ্যমে শাখা ব্যবস্থাপকের ভূয়াসী প্রসংশা করে গ্রাহক সেবার মান আরো
বৃদ্ধির অনুরোধ জানান।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সাংবাদিক উজ্জ্বল ধর, আনোয়ার
হোসেন আনা, আব্দুল মতিন, জয়নাল আবেদীন, আবুল কালাম আজাদ, সিতু সূত্রধর,

ব্যবসায়ী জাহেদ রিপন,আব্দুল গফ্ফার, কবির মিয়া প্রমূখ।

উল্লেখ্য যে, ১৯৭৪ সাল থেকে ওসমানীনগরের গোয়ালাবাজারে গ্রাহক সেবা দিয়ে
আসছে পূবালী ব্যাংক।বর্তমান ডাক্তার, শিক্ষক, সাংবাদিক, ব্যবসায়ীসহ
বিভিন্ন শ্রেণিপেশার প্রায় ২৫ হাজার গ্রাহক রয়েছে ব্যাংকটির।

প্রতিদিন গড়ে প্রায় আড়াই কোটি টাকার লেনদেন হয়ে থাকে বলে জানিয়েছেন শাখা
ব্যবস্থাপক।