তদারকির অভাবে বাড়ছে নিত্যপণ্যের দাম: ক্যাব

0
80

করোনাকালে রাজধানীসহ দেশব্যাপী নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের ঊর্ধ্বমুখী দামে লাগাম টানা যাচ্ছে না। ভোক্তা অধিকার সংগঠন কনজুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব), চট্টগ্রাম অভিযোগ করেছে, প্রশাসনের দায়সারা তদারকির কারণেই নিত্যপণ্যের বাজারে এই অস্থিরতা।

শুক্রবার (২৮ আগস্ট) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে সংগঠনটি বলে, ‘ব্যবসায়ীরা বারবার বিনা কারণে খাদ্যপণ্যের কৃত্রিম সংকট তৈরি করে জনগণের পকেট কাটছে। অথচ সরকারের পক্ষ থেকে বাজার তদারকি ও খাদ্যপণ্যের পর্যাপ্ত মজুদ ও সরবরাহের কথা বলা হলেও লাফিয়ে লাফিয়ে দাম বাড়ছে। এ অবস্থায় খাদ্য বিভাগের আওতায় বাজারে ওএমএস চালু, টিসিবির মাধ্যমে খাদ্যপণ্য বিক্রি বাড়ানো এবং বাজার তদারকি জোরদার করা প্রয়োজন।’

বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেন ক্যাবের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি এস এম নাজের হোসাইন, ক্যাবের চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাধারণ সম্পাদক কাজী ইকবাল বাহার ছাবেরী, চট্টগ্রাম মহানগর কমিটির সভাপতি জেসমিন সুলতানা পারু, সাধারণ সম্পাদক অজয় মিত্র শংকু, যুগ্ম সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম ও চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা কমিটির সভাপতি আবদুল মান্নান প্রমুখ।

বিবৃতিতে ক্যাব নেতারা বলেন, ‘ইতোপূর্বে চাল, ডাল, পেয়াঁজসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্যের বাজার অস্থির হলে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় জেলা প্রশাসন, ব্যবসায়ী, ভোক্তা ও সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরকে নিয়ে পরামর্শ সভা করে করণীয় নির্ধারণ করত। এখন বাজার পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণ করছেন ব্যবসায়ীরা। প্রশাসন দায়সারাভাবে দু-একটি অভিযান চালিয়েই ক্ষান্ত এবং সরকারকে অবহিত করছে যে, ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে অভিযান চলছে। প্রকৃতপক্ষে, এই অধারাবাহিক খণ্ডকালীন অভিযান বাজারে প্রভাব ফেলার পরিবর্তে আরো উসকে দিচ্ছে।’

তারা আরো বলেন, ‘চালের দাম বাড়লে খাদ্য বিভাগ ওএমএস, ট্রাক সেল, টিসিবি ডিলারের মাধ্যমে বিক্রয় জোরদার করে থাকে। কিন্তু কয়েক মাস ধরেই সে কর্মকাণ্ড অনেকটাই স্থবির। সাধারণ ও শ্রমজীবী মানুষ একদিকে কর্মহীন, অন‌্যদিকে ব্যবসায়ীরা বাড়তি মুনাফা করতে মরিয়া।’